পাতা

সাধারণ তথ্য

. গভীর নলকূপ খনন ও এবং আবাদযোগ্য জমি নিয়ন্ত্রিত সেচ সুবিধার আওতায় এনে কূপন পদ্ধতি/প্রি-পেইড মিটারের মাধ্যমে আধুনিক পদ্ধতিতে কৃষকদের চাহিদা অনুযায়ী কম খরচে পরিমিত সেচ প্রদান।

২. ভূ-উপরিস্থ পানির উৎস বৃদ্ধির জন্য খাল ও পুকুর পূণঃ খনন ও সেচ কাজে ব্যবহার।

৩. সেচের পানি ও কৃষি জমির অপচয় কমানো ও সেচ এলাকা বৃদ্ধির জন্য সেচ কাজে ব্যবহার্য পানি বন্টন ব্যবস্থা নির্মাণ এবং কম খরচে সেচ সুবিধা প্রদানের জন্য সেচ যন্ত্র বিদ্যুতায়ন।

৪. সেচের গভীর নলকূপ হতে আর্সেনিকমুক্ত খাবার পানি সরবরাহ।

৫. বাজার ব্যবস্থা উন্নয়নে গ্রামীণ সংযোগ সড়ক নির্মাণ।

৬. প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা আনয়নে ব্যাপক বনায়ন।

৭. ফসলের বহুমুখীকরণের মাধ্যমে নিবিড়তা বৃদ্ধিকল্পে উন্নত জাতের বীজ বিতরণ।

৮. বিভিন্নমুখী উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে এলাকায় কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে গ্রামীন জনগোষ্ঠীর দারিদ্র্য বিমোচন ও জীবনযাত্রার মানোন্নয়নে সহায়তা করা।


Share with :

Facebook Twitter